সম্প্রতি উইবো’তে প্রকাশিত হয়েছে অপ্পো ফাইন্ড ৯ এর একটি ছবি। বেশ কিছুদিন থেকেই বোদ্ধা মহলে আসন্ন এ ফোনের বিষয়ে আমরা আলোচনা শুনতে পাচ্ছি। হ্যান্ডসেটটি গত এপ্রিলে জিএফএক্সবেঞ্চ এ বেঞ্চমার্ক টেস্ট উত্তীর্ণ হয়েছে। তবে তারপর থেকে এবারই প্রথম চীনের এই মাইক্রো-ব্লগিং সাইটটিতে আমরা ফাইন্ড ৯ এর বিস্তারিত বৈশিষ্ট্যের কথা জানতে পারলাম।

আশা করা যাচ্ছে অপ্পো ফাইন্ড ৯ এর ডিসপ্লে হবে ৫.৫ ইঞ্চির সুপার অ্যামোলেড যাতে থাকবে ১৪৪০ * ২৫৬০ কিউএইচডি রেজ্যুলুশনের স্ক্রিন। এই ডিভাইসটির স্ক্রিনটি বলতে গেলে সেটের চারধারের প্রান্ত ছোঁয়া হবে। অপ্পোর এই ফোনে আছে স্ন্যাপড্রাগন ৮২১ চিপসেট। ফোনটি দুটি ভিন্ন সংস্করণে বাজাওে আসবে বলে শোনা যাচ্ছে। এর একটি সংস্করণে থাকবে ৮জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি সংরক্ষণ ক্ষমতা। তাই ধরে নেয়া যেতে পারে যে, অন্য সংস্করণটির র‌্যাম ও আভ্যন্তরীন সংরক্ষণ ক্ষমতা তার থেকে কিছুটা কম হবে।

ফাইন্ড ৯ এর ২১ মেগাপিক্সেলের প্রধান ক্যামেরাটিতে ‘স্মার্টসেন্সর ইমেজ স্টেবিলাইজেশন’ নামের বৈশিষ্ট্য থাকবে। এই বৈশিষ্ট্যের বিশেষত্ব হলে যে, এর লেন্স থেকে ওআইএস সরিয়ে নিয়ে তা ইমেজ সেন্সরের মধ্যে লাগিয়ে দেয়া হয়েছে যেখানে ওআইএস এর ২টির বদলে এই স্টেবিলাইজেশনে ৩টি অ্যাক্সিস থাকবে। ওআইএস এ যে পরিমান ব্যাটারি শক্তি ব্যয় হতো এখানে তা থেকে ৫০ গুন কম ব্যাটারি শক্তি ব্যবহৃত হবে। সেলফি ও ভিডিও চ্যাটের জন্যে এর সামনে যুক্ত ক্যামেরাটিতে থাকবে ১৬ মেগাপিক্সেল সেন্সর। ৪১০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ার ব্যাটারি থাকবে অপ্পো ফাইন্ড৯ এ। ব্যাটারিতে ভিওওসি প্রযুক্তি থাকায় তা দিয়ে কম সময়ের মধ্যে ফোনসেটে চার্জ দেয়া যাবে। এতে আরো থাকবে টাইপ-সি ইউএসবি ২.০ পোর্ট।

আগস্ট মাসের শেষ ভাগে অপ্পো ফাইন্ড ৯ অবমুক্ত হতে পারে বলে আমরা জানতে পেরেছি। লক্ষ্য করলে দেখা যায় যে, অপ্পো প্রায়ই তাদের পন্য অবমুক্ত করার বেশ আগেই সেগুলির টিজার প্রকাশ করে থাকে। সে কারণে যদি কিছুদিনের মধ্যেই কোম্পানিটির পন্য প্রচারণা কার্যক্রমে অপ্পো ফাইন্ড ৯ এর টিজার দেখতে পাই তাহলেও আমাদের অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না।

LEAVE A REPLY